মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

দর্শনীয় স্থান

ক্রমিক নাম কিভাবে যাওয়া যায় অবস্থান
মুছাপুর ছোট ফেনী নদী নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুর হাট থেকে মুছাপুর বাংলা বাজার এর পর বাংলা বাজার থেকে পূর্বে ২ কিলোমিটার রাস্তা পার হয়ে যাওয়া যায়। সেখানে আছে-নদীর প্রাকৃতিক দৃশ্য,বিকেলের হিমেল হাওয়া, নৌকা ভ্রমনের আনন্দ, পাখির কলতান, মাঝির গান,সহ মনোরম নানান দৃশ্য বর্ণি এই ছোট ফেনী নদী। নদীর প্রাকৃতিক দৃশ্য,বিকেলের হিমেল হাওয়া, নৌকা ভ্রমনের আনন্দ, পাখির কলতান, মাঝির গান,সহ মনোরম নানান দৃশ্য বর্ণি এই ছোট ফেনী নদী।
মুছাপুর ক্লোজার নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুর হাট থেকে বাংলা বাজার, অতপর দক্ষিনে চৌধুরী বাজার পার ২ কিলোমিটার রাস্তা হয়ে চার রাস্তার মোড় দিয়ে পূর্ব দিকে জনতা বাজার এর পর দক্ষিণে ১.৫ কিলোমিটার রাস্তার অতিক্রম করে একটু পূর্বে গেলেই মুছাপুর ক্লোজার।
মুছাপুর ফরেষ্ট নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুর হাট থেকে বাংলা বাজার, অতপর দক্ষিনে চৌধুরী বাজার পার ২ কিলোমিটার রাস্তা হয়ে চার রাস্তার মোড় দিয়ে পূর্ব দিকে জনতা বাজার এর পর দক্ষিণে ১.৫ কিলোমিটার রাস্তার অতিক্রম করে একটু পূর্বে গেলেই মুছাপুর ফরেষ্ট
মুছাপুর ফরেষ্ট লেক নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুর হাট থেকে বাংলা বাজার, অতপর দক্ষিনে চৌধুরী বাজার পার ২ কিলোমিটার রাস্তা হয়ে চার রাস্তার মোড় দিয়ে পূর্ব দিকে জনতা বাজার এর পর দক্ষিণে ১.৫ কিলোমিটার রাস্তার অতিক্রম করে একটু পূর্বে গেলেই মুছাপুর ফরেষ্ট, তার মধ্য ভাগে অবস্থিত মুছাপুর ফরেষ্ট লেক
মুছাপুর ফরেষ্ট লেক নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুর হাট থেকে বাংলা বাজার, অতপর দক্ষিনে চৌধুরী বাজার পার ২ কিলোমিটার রাস্তা হয়ে চার রাস্তার মোড় দিয়ে পূর্ব দিকে জনতা বাজার এর পর দক্ষিণে ১.৫ কিলোমিটার রাস্তার অতিক্রম করে একটু পূর্বে গেলেই মুছাপুর ফরেষ্ট, তার মধ্য ভাগে অবস্থিত মুছাপুর ফরেষ্ট লেক
শাহাজাদপুর-সুন্দলপুর গ্যাস ক্ষেত্র নোয়াখালী জেলার কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার আওতাধীন ০১ নং সিরাজপুর ইউনিয়নের ০৮নং ওয়ার্ডের অন্তর্গত শাহাজাদপুর গ্রামে শাহাজাদপুর-সুন্দলপুর গ্যাস ক্ষেত্রটি অবস্থিত। কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ঐতিহ্য শাহাজাদপুর-সুন্দলপুর গ্যাস ক্ষেত্র গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিগত ০৮ জানুয়ারী ২০১৩ খ্রিঃ তারিখে উদ্বোধন করেন। এই গ্যাস ক্ষেত্রের উৎপাদন শুরু হয় ১৭-০৩-২০১২ইং তারিখ হতে । এই গ্যাস ক্ষেত্র হতে দৈনিক গড়ে ৫ মিলিয়ন ঘন ফুট গ্যাস জাতীয় গ্রেডে সংযোজিত হয়।
মহিষের দধি কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার অনেক গুলো ঐতিহ্যর মধ্যে একটি মহিষের দধি । এই উপজেলা প্রত্যন্ত আঞ্চল থেকে মহিষের দধি সংগ্রহ করা হয় । চরহাজারী, মুসাপুর ,রামপুর ও চরএলাহীতে ৬০টি খামারে প্রায় ৬০০টি মত মহিষ রয়েছে। প্রতিদিন গড়ে ৫,০০০ লিটার দুধ উক্ত খামারগুলোতে উৎপাদিত হয়। এখানকার মহিষের দধি ফেনী, নোয়াখালী, ঢাকা চট্টগ্রাম সহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সরবরাহ করা হয়। উৎপাদিত মহিষের দধি খুবই সুস্বাদু। এ উপজেলার বসুরহাট বাজারে প্রায় ২০টি দধির দোকান আছে।